জেলখানায় ভার্চুয়াল সিস্টেম বসাতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ

বিচারিক কার্যক্রম সহজ করতে দেশের সব জেলখানায় ভার্চুয়াল সিস্টেম বসানোর নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বলেছেন, কারাগারের অভ্যন্তরে ভার্চুয়াল সিস্টেম স্থাপন করতে হবে যাতে প্রয়োজনে মামলা মোকদ্দমা ডিজিটালি সম্পাদন করা সম্ভব হয়।

মঙ্গলবার (২১ জুন) জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় এ নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। সভা শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এসব তথ্য জানান পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা তুলে ধরে বলেন, জামালপুর কারাগার প্রকল্পের আলোচনার সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, জামালপুরের কারাগারে ভার্চুয়াল কোর্ট করতে হবে যাতে মামলা মোকদ্দমা ডিজিটালই সম্ভব হয়। শুধু জামালপুরই নয়, অন্যান্য জেলা কারাগারেও সার্বিকভাবে ভার্চুয়াল সুযোগ-সুবিধা থাকতে হবে। অনেক সময় (আসামিকে) তাকে নেয়ার দরকার নেই। ওখানে বসেই বিচার করা যায় ভার্চুয়ালি। কিছু কিছু কয়েদি আছে নিরাপত্তাজনিত কারণে কোর্টে না নেয়াই সেইফ। তিনি (প্রধানমন্ত্রী) বলেছেন, ‘সব জেলখানায় ভার্চুয়াল সিস্টেম বসিয়ে দাও। জামালপুর তো করবেই, অন্যান্যগুলোতেও বসাও।’

কারাগারে সুযোগসুবিধা বাড়ানোর বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা তুলে ধরে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এম মান্নান বলেন, কারাগারে যেন ফ্যান থাকে, টিভি দেখার ব্যবস্থা থাকে। আর কারাগারে যারা পণ্য তৈরি করে তারা যেন সে পণ্য বিক্রির ৫০ শতাংশ লাভ পায়। বাড়িতে যাওয়ার সময় সেটা নিয়ে যেতে পারে। সকল জেলেই এটা করতে হবে। সংস্কার শুধু জামালপুর নয়, অন্যান্য জেলকেও সংস্কার করতে হবে। মিনিমাম চমৎকার আধুনিক ব্যবস্থা গড়ে তুলতে হবে। যাতে যারা জেলের বাসিন্দা তারা যেন মোটামুটি মানসম্পন্নভাবে থাকতে পারে।

জলাশয় সংস্কারের মাধ্যমে মৎস্য উৎপাদন বৃদ্ধি (২য় সংশোধিত) প্রকল্প প্রসঙ্গে খালকাটা ও পুকুর সংস্কারের নামে শুধু পাড় থেকে একটু মাটি তুলেই যেন বিল (টাকা) নিয়ে না নেয়া হয় সে বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের কঠোর নজর রাখার নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা তুলে ধরে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, তিনি (প্রধানমন্ত্রী) বলেছেন তার কাছে খাল কাটার নামে, পুকুর সংস্কারের নামে পাড়গুলোর খালি ছেলে-ছুটে বিল তোলা হয়েছে এমন সংবাদ তিনি চেক করিয়েছেন। এটা মন্ত্রণালয়কে বলেছেন, এটা ভালো করে দেখা দরকার। কেউ যেন শুধু পাড়গুলোকে একটু ছেটে ভাব দেখাতে না পারে- আমি পুকুর কাটছি।

পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান সাংবাদিকদের প্রশ্নের জাবাবে বলেন, এটা অত্যন্ত পুরনো একটা ট্রিকস। কেউ কেউ করেছে, এটা আমিও দেখেছি। এটা সম্পর্কে তিনি (প্রধানমন্ত্রী) জানেন এবং খুব স্ট্রং মন্তব্য করেছেন। মাটি কাটা হলে সেটা যেন প্রয়োজনীয় গভীর করে কাটা হয়। আর মাটি যে কাটা হয়েছে সে মাটি গেল কোথায় এ বিষয়ে ঠিকাদারকে জবাব দিতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী এবং একনেক-এর চেয়ারপারসন শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মঙ্গলবার গণভবনের সাথে সংযুক্ত হয়ে ভিডিও কনফারেন্সিং-এর মাধ্যমে শেরে বাংলা নগরস্থ এনইসি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত একনেক-এর সভায় ১০ প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে জামালপুর জেলা কারাগার পুনঃনির্মাণ প্রকল্প ও জলাশয় সংস্কারের মাধ্যমে মৎস্য উৎপাদন বৃদ্ধি (২য় সংশোধিত) প্রকল্পও রয়েছে।