চলে গেলেন ছাত্রলীগ নেতা সবুজ – সাংসদ মাদানীর শোক

এইচ. এম জোবায়ের হোসাইন :
মোটর সাইকেল দুর্ঘটনায় মারাত্মকভাবে আহত হয়ে দশদিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় অবশেষে রোববার সন্ধ্যা ৭টার দিকে না ফেরার দেশে চলে গেলেন ময়মনসিংহের ত্রিশাল পৌর ছাত্রলীগ নেতা মেহেদী হাসান সবুজ (১৯)। সবুজের অকাল মৃত্যুতে শোকে কাতর তার পরিবার, সহপাঠী ও দলীয় নেতাকর্মীরা।
পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, গত ২৩ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যার দিকে ত্রিশাল-বালিপাড়া সড়কের বীররামপুর বটতলা নামকস্থানে ট্রাকের সঙ্গে ধাক্কা লেগে ত্রিশাল সরকারি নজরুল কলেজের শিক্ষার্থী মেহেদী হাসান সবুজসহ তিন বন্ধু মারাত্মকভাবে আহত হন। এলাকাবাসি ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা আশংকাজনক অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। তিনজনের মধ্যে মেহেদী হাসান সবুজ ও ইমাম হাসান চৌধুরীর প্রচুর রক্তক্ষরণে ফলে অবস্থার অবনতি হতে থাকলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করে। পরে ঢাকার নিউ লাইফ হাসপাতালে টানা দশদিন লাইফ সাপোর্টে থেকে রোববার সন্ধ্যা ৭টার দিকে মৃত্যু হয় তার। নিহত ছাত্রলীনেতা মেহেদী হাসান সবুজ উপজেলার কাঁঠাল ইউনিয়নের বিলবোকা গ্রামের সোহরাব হোসেনের ছেলে। সবুজের অকাল মৃত্যুতে শোকাহত তার পরিবার, স্বজন, সহপাঠী ও দলীয় নেতাকর্মীদের পোষ্টে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে শোকের ঝড় উঠে।
ওদিকে ছাত্রলীনেতা মেহেদী হাসান সবুজের অকাল মৃত্যুতে গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করেছেন ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও জাতীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব হাফেজ মাওলানা রুহুল আমিন মাদানী ও উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি হাসান মাহমুদ।