গাজীপুরে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ২ জন নিহত

গাজীপুরে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় এক চালকসহ দুইজন নিহত এবং তিনজন আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার (২৬ ডিসেম্বর) সকালে গাজীপুর সদরের শিরিরচালা এবং শ্রীপুরের সোহাদিয়া এ দুর্ঘটনা ঘটে ।

নিহতদের মধ্যে বুর্জু মিয়ার বাড়ি (৪০) কিশোরগঞ্জের নিকলী উপজেলার আলিয়াপাড়া এলাকায়। তিনি পেশায় মাছ ব্যবসায়ী। অপরদিকে পিকআপ চালক শাহীনুরের (৩০) বাড়ি দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার ঘিওর এলাকায়। বাবার নাম আব্দুল মালেক।

এছাড়া আহতরা হলেন- বুর্জু মিয়ার মেয়ে তানিয়া আক্তার (১৮), সাদিয়া আক্তার (১৪) ও আড়াই বছরের শিশু মোহাম্মদ মাহিন। তাদের প্রথমে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

শ্রীপুর থানার এসআই মো. রফিকুল ইসলাম জানান, আজ (বৃহস্পতিবার) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে সিএনজি চালিত অটোরিকশাটি কাওরাইদ থেকে যাত্রী নিয়ে স্থানীয় জৈনাবাজারের উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। পথে সোহাদিয়া গ্রামে একটি স্টিল মিলের সামনে পৌঁছালে সকাল পৌনে ৮টার দিকে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ডাম্প ট্রাকের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে বুর্জু মিয়াসহ তানিয়া, সাদিয়া ও শিশু মোহাম্মদ মাহিন আহত হয়। পরে তাদের উদ্ধার করে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়।

শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার মো. জাহাঙ্গীর আলম জানান, বুর্জু মিয়াকে মৃত অবস্থায় এবং তার সন্তানদের গুরুতর আহতবস্থায় এ হাসপাতালে আনা হয়। আহতদের ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

অপরদিকে, মাওনা মহাসড়ক থানার এসআই আবুল হাসেম জানান, সকাল সোয়া ৭টার দিকে সদর উপজেলার শিরিরচালা এলাকায় (পুষ্পদাম রিসোর্টের সামনে) ঢাকাগামী একটি পিকআপের চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দাঁড়িয়ে থাকা একটি কভার্ডভ্যানের পেছনে সজোরে ধাক্কা দেয়। এতে পিকআপের সামনের অংশ দুমড়ে-মুচড়ে যায় এবং ঘটনাস্থলেই চালক শাহীনুর মারা যান।

তিনি আরও জানান, দুর্ঘটনার প্রকৃতি দেখে মনে হয়েছে চালক ঘুমিয়ে পড়ায় এমন ঘটনা ঘটেছে। মরদেহ উদ্ধার করে আইনি প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।