গভীররাতে কর্মহীন মানুষের পাশে ছাত্রলীগ সভাপতি হাসান মাহমুদ

এইচ. এম জোবায়ের হোসাইন :
রাত প্রায় দেড়টা বাঝে। যখন সকলে নিজ ঘরে হোম কোয়ারেন্টাইনে বা
ঘুমের ঘোরে। ঠিক তখনই দরজায় নক করে বলছেন আমি হাসান আপনার
সাথে একটু দেখা করতে এসেছি। বৃদ্ধ দরজা খোলে দেখেন খাদ্য
সামগ্রী নিয়ে অপেক্ষা করছে একজন। চাল, ডাল, আলু, তৈল, পেয়াজসহ
বিভিন্ন প্রকারের খাদ্য সামগ্রী নিয়ে কর্মহীন, অসহায় ও নিম্ন
আয়ের মানুষগুলোর বাড়ীতে রাতের অন্ধকারে ছুটে যাচ্ছেন তিনি। দিনভর
কর্মীদের মাধ্যমে অসহায়, কর্মহীন, নিম্ন ও মধ্যবিত্তের লোকজনের তালিকা তৈরী করে রাতের আধাঁরে বেড়িয়ে পরেন গাড়ী নিয়ে মানুষের দ্বারে দ্বারে।
বলছিলাম ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি হাসান
মাহমুদের কথা। গত ১৭দিন যাবত এভাবেই পৌর এলাকার বিভিন্ন ওয়ার্ড ও মহল্লায় ত্রাণ বিতরণ করে যাচ্ছেন। শনিবার দিনগত রাত দেড়টার দিকে আকস্মিক ভাবেই গোপনে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম চোখে পড়ে এ প্রতিনিধির।
শনিবার দিনগত গভীর রাতে পৌরশহরের বিভিন্ন ওয়ার্ড ও মহল্লার প্রায় দুই শতাধিক পরিবারকে এসব খাদ্য সামগ্রীর পাশাপাশি
হ্যান্ডস্যানিটাইজার ও মাস্ক বিতরণ করেন। এসময় উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি শফিউল্লাহ মোস্তফা মনির, পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি মনোয়ার হোসেন সরকার উপস্থিত ছিলেন।
ত্রিশাল উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি হাসান মাহমুদ জানান, ধর্ম বিষয়ক
মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও সংসদ সদস্য হাফেজ মাওলানা রুহুল আমিন মাদানীর নির্দেশে এ খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম চলছে। যতদিন অবস্থার পরিবর্তন না হবে ততদিন
অব্যাহত থাকবে। পৌরসভার প্রতিটি ওয়ার্ডের অসহায়, কর্মহীন, নিম্ন ও মধ্যবিত্তের পরিবারের তালিকা করা হচ্ছে। পর্যায়ক্রমে সকল
ওয়ার্ডেই বিতরণ করা হবে। এছাড়াও উপজেলার ১২টি ইউনিয়নেরও তালিকা করা হচ্ছে। খুব দ্রুত সময়ের মধ্যেই সকল ইউনিয়নেই বিতরণ
কার্যক্রম শুরু হবে ইনশাল্লাহ।