খট খট শব্দে মুখরিত হচ্ছে তাঁত পল্লী

17

নিউজ ডেস্ক : টাঙ্গাইলের বাসাইল উপজেলায় শীতের আগমনে ব্যাস্ত হয়ে উঠেছেন শাল – চাদরের কারিগর, মালিকরা। খট খট শব্দে মুখরিত হয়ে উঠছে তাঁত পল্লী।

তবে, বন্যা ও করোনায় লাখ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে জানিয়ে সরকারি প্রণোদনার দাবি জানিয়েছেন তারা।

দীর্ঘদিন পর আবারও খটখট শব্দে মুখরিত হচ্ছে টাঙ্গাইলের তাঁত পল্লী। শীতের জন্য আগাম প্রস্তুতি নিচ্ছেন চাদর প্রস্তুত কারিগররা। কাকডাকা ভোর থেকে শুরু করে রাত পর্যন্ত মনিপুরি, হাই চয়েজ, নয়ন তারা, ফ্লক প্রিন্টসহ প্রায় ২৫ রকম ডিজাইনের চাদর তৈরি করছেন তারা।

তাঁত মালিকরা জানান, করোনা পরিস্থিতিতে দেশব্যাপী লকডাউন ও সাম্প্রতিক বন্যায় উৎপাদন বন্ধ রাখতে হয়েছে। ফলে লাখ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। উৎপাদন বাড়িয়ে দিয়ে চেষ্টা করছেন ঘুরে দাঁড়ানোর। তবে, ভারতসহ বিভিন্ন দেশ থেকে শাল চাদর দেশে ঢুকে পড়ায় তারা বাজারে সুবিধা করতে পারেন না। তাদের আশা শিগগিরই করোনার আগের অবস্থানে ফিরতে পারবেন।