কর্নাটকে একদিনে ৪৫ কোটি রুপির মদ বিক্রি

ভারতে সোমবার মদের দোকান খুলতেই ভিড় উপচে পড়লো সুরাপ্রেমীদের। ফলে একদিনে মদ বিক্রিতে রেকর্ড করলো ভারতের কর্নাটক রাজ্য।

সোমবার মদের দোকান খোলার পরদিনই জানা যায়, কর্নাটকে একদিনে ৪৫ কোটি রুপির উপর মদ বিক্রি হয়েছে।

ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণলয় মদ বিক্রির ক্ষেত্রে যে নিয়ম লাগু করার কথা জানিয়েছিলো, সোমবার দেশের কোথাও সেই নিয়ম মানা হয়নি। ফলে একদিন মদের দোকান খুলতেই সুরাপ্রেমীদের ভিড়ে স্বভাবতই বাড়লো করোনা ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা।

ওইদিন ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে দোকান খুলতেই দেখা যায় বেশিরভাগ ক্রেতারা একজোট হয়ে মদ কিনতে শুরু করেছেন। সামাজিক দূরত্ব রাখা তো দূরে থাকুক, কোথাও কোথাও একে অপরের উপর হুমড়ি খেয়ে মদ কেনার প্রতিযোগিতায় নামে ক্রেতারা।

সকাল ৭টার সময়েই দেখা যায় ভারতের বিভিন্ন রাজ্যের মদের দোকানগুলোতে গা ঘেঁষাঘেঁষি করে সুরাপ্রেমীরা লাইনে দাঁড়িয়েছেন। কে আগে মদ কিনতে পারবে তার জন্য ঠেলাঠেলি ও ধাক্কাধাক্কিও শুরু হয়ে যায়।

ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লির ১৫০ টি মদের দোকান এদিন খুলে দেওয়া হয়। প্রতিটি মদের দোকানের বাইরেই দেখা যায় সুরাপ্রেমীদের লম্বা লাইন।

মহারাষ্ট্র, কর্নাটকসহ ভারতের একাধিক রাজ্যের মদের দোকানগুলির সামনে লকডাউনের নিয়ম না মানার অভিযোগ ওঠে ক্রেতাদের বিরুদ্ধে। দোকান খোলার আগে থেকেই জমায়েত শুরু হয়ে যায় প্রতিটি দোকানের সামনে। সেখানে কোনও সামাজিক দূরত্ব মানার কোনও ছবিই দেখা যায়নি।

উল্লেখ্য, গত ২৪ মার্চ থেকে করোনা মোকাবিলায় লাকডাউনের কারনে বন্ধ রাখা হয়েছিলো মদের দোকানগুলি।

এদিকে সোমবার দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর মদের দোকান খুললে মানুষের ভিড় বাড়তে থাকলে নিরুপায় হয়ে রাজধানী দিল্লিসহ ভারতের বেশ কয়েকটি রাজ্যের মদের দোকান বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয় প্রশাসন।