করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধে আমরা জিতবই : সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণ পরিস্থিতিতে এবার ঘরে বসে পহেলা বৈশাখ উদযাপন করা হচ্ছে জানিয়ে সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বলেছেন, করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধে আমরা জিতবই।

মঙ্গলবার (১৪ এপ্রিল) টেলিভিশনে বাংলা বর্ষবরণ-১৪২৭ অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী এ কথা জানান। করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী ডিজিটাল পদ্ধতিতে পহেলা বৈশাখ উদ্‌যাপনের জন্য সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। অনুষ্ঠানটি সকাল সাড়ে আটটা থেকে সকল সরকারি-বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে সম্প্রচারিত হচ্ছে।

করোনাভাইরাসের কারণে বর্ষবরণের সব অনুষ্ঠান নিষিদ্ধ করা হয়েছে জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘তাই এবার আমরা ঘরে বসে পহেলা বৈশাখ উদযাপন করছি। পহেলা বৈশাখ বাঙালির শত শত বছরের গৌরবোজ্জ্বল সংস্কৃতির অন্যতম ঐতিহ্য। কৃষকের নতুন ফসল ঘরে তোলা নবান্ন, ব্যবসায়ীর হালখাতা, নানান অঞ্চলের হরেক রকম খেলা, উৎসব, পার্বণ, মেলা আর সব অশুভ ও অকল্যাণকর যা কিছু সবকিছু ঝেড়ে-মুছে ফেলে মঙ্গল শোভাযাত্রা নিয়ে সামনে এগিয়ে চলা-এই তো আমাদের পহেলা বৈশাখ।’

‘এমনিভাবে তিন পার্বত্য জেলাতেও ক্ষুদ্র নৃ-তাত্ত্বিক জাতিগোষ্ঠীগুলো বিজু, সাংগ্রাই, বৈশাবী উৎসব উদযাপন করে থাকে বৈশাখে।’

কে এম খালিদ বলেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কারাগারে বন্দি থেকেও পহেলা বৈশাখ উদযাপন করেছেন। আজ জাতির পিতার সুযোগ্য কন্যা উন্নত-সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মাণের সুনিপুণ কারিগর। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুদক্ষ নেতৃত্বে আমরা করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধে অবতীর্ণ হয়েছি। এই যুদ্ধে আমরা জিতবই ইনশাআল্লাহ।’

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনাবলী মেনে চলুন, সবাই ঘরে থাকুন, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখুন। সবাইকে নববর্ষের শুভেচ্ছা।’