করোনাভাইরাস দ্রুত শনাক্তে দেশে আসছে টেস্ট কিট

চীন থেকে ফেরত বাংলাদেশি নাগরিকদের হাজিক্যাম্পে রেখে তাদের কারো শরীরের করোনাভাইরাস রয়েছে কি না তা শনাক্ত করা হচ্ছে। এই শনাক্ত কাজ আরও দ্রুত সময়ের মধ্যে করতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কাছে রেপিড টেস্ট কিট চাওয়া হয়েছে। এসব কিডের মাধ্যমে ১৫ থেকে ২০ মিনিটে করোনাভাইরাস পরীক্ষা করা যাবে।

শুক্রবার সকালে রাজধানীর মহাখালীতে রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট- আইইডিসিআরে কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানিয়েছেন আইইডিসিআরের পরিচালক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা।

পরিচালক জানান, করোনাভাইরাস দ্রুত শনাক্ত করতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার রেপিড টেস্ট কিট চাওয়া হয়েছে এবং তা অল্প কিছুদিনের মধ্যে চলে আসবে।

এ পর্যন্ত চীন থেকে আসা আট হাজার ৩৯৬ জনকে স্ক্রিনিং করা হয়েছে। নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ৫০ জনের। তারা কেউই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত নয় বলে জানিয়েছেন আইইডিসিআরের পরিচালক।

ফ্লোরা বলেন, ‘উহানে থাকা ১৭২ জনকে এখনই দেশে আসতে উৎসাহিত করা হচ্ছে না। তবে ফিরে এলে তাদেরও হজক্যাম্পের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। উহান-ফেরত বিমান ক্রুদের হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।’

দেশের সব স্থলবন্দরে স্ক্রিনিং মেশিন পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। এখন থেকে চীন থেকে আসা সবাইকে কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে বলেও জানান সেব্রিনা ফ্লোরা।