কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় ও ইরানের ফেরদৌসি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর ১০ডিসেম্বর

ফারুক আহমেদ :
জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্সটিটিউট অব নজরুল স্টাডিজ এবং ইসলামিক রিপাবলিক অব ইরানের ফেরদৌসি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে সমঝোতা স্মারক চুক্তি স্বাক্ষর হতে যাচ্ছে আগামী ১০ ডিসেম্বর । জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের সৃষ্টিকর্ম ও মূল্যবোধ ছড়িয়ে দিতে শিক্ষা ও গবেষণা কাজে দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতার লক্ষ্যে এই চুক্তি স্বাক্ষর হতে যাচ্ছে। এই উপলক্ষ্যে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. এ এইচ এম মোস্তাফিজুর রহমান-এর নেতৃত্বে ৪ সদস্যের প্রতিনিধিদল রবিবার ইরানের উদ্দেশ্যে যাত্রা করছেন। প্রতিনিধি দলে অন্যান্যের মধ্যে রয়েছেন কলা অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মো. সাহাবউদ্দিন, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) কৃষিবিদ ড. মো. হুমায়ুন কবীর এবং ইন্সটিটিউট অব নজরুল স্টাডিজ-এর উপ-পরিচালক মো. রাশেদুল আনাম।

একাডেমিক শিক্ষায় পারস্যভাষার ব্যবহার, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের গবেষণা ও কবি ফেরদৌসি’র জীবন ও কর্ম নিয়ে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে ছড়িয়ে দিতে দুই প্রতিষ্ঠান একসাথে কাজ করতে যাচ্ছে। জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম এবং কবি ফেরদৌসি’র জীবন ও কর্মের উপর যৌথ গবেষণা কর্ম সম্পাদন এবং তা বাংলা ও ফারসী ভাষায় প্রকাশের উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। এমন একটি ওয়েবসাইট নির্মাণ করা হবে যেখানে কবি নজরুল ও কবি ফেরদৌসি’র জীবন ও কর্ম নিয়ে বিস্তারিত তথ্য থাকবে এবং এই ওয়েবসাইটে বিশ্বের যেকোন প্রান্ত থেকে প্রবেশ করা যাবে। এছাড়া এই চুক্তিতে আরও থাকবে উল্লিখিত দুই প্রতিষ্ঠানের মধ্যে তথ্য বিনিময়, সেমিনার আয়োজন, শিক্ষার্থী বিনিময়, অনুষদীয় সদস্য আমন্ত্রণ, যৌথ পরিচয়ে নতুন গবেষণা প্রকল্প প্রস্তাব তৈরি ইত্যাদি।

প্রাথমিকভাবে দ্বিপাক্ষিক এই সমঝোতা স্মারক চুক্তি স্বাক্ষর হবে আগামী ৫বছরের জন্য। এই চুক্তিতে স্বাক্ষর করবেন দুই বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর, রেজিস্ট্রার, বাংলা ভাষা ও সাহিত্য এবং ফারসী ভাষা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান এবং ইন্সটিটিউট অব নজরুল স্টাডিজ ও ফেরদৌসি সেন্টার ফর সোশ্যাল এন্ড কালচারাল স্টাডিজের উপ-পরিচালক।