কবরীকে গার্ড অব অনার প্রদান

প্রখ্যাত অভিনেত্রী সারাহ বেগম কবরীর মরদেহ এখন বনানী কবরস্থানে৷ সেখানেই চিরনিদ্রায় শায়িত হবেন তিনি৷ করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করা এ তারকার দাফন কাজে মানা হচ্ছে কড়া স্বাস্থ্যবিধি।

আজ ১৭ এপ্রিল দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে কবরীর মরদেহ বনানী কবরস্থানে নিয়ে আসা হয়৷ সেখানে বাদ জোহর রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন করা হবে কবরীকে। তার আগে মুক্তিযুদ্ধে এ নায়িকার অসামান্য অবদানকে স্মরণ করে তাকে গার্ড অব অনার দেয়া হয়েছে৷এখন চলছে তার জানাজা নামাজ। এরপর দাফন সম্পন্ন হবে।

কবরী ১৯৬৪ সালে সুভাষ দত্তের ‘সুতরাং’ দিয়ে চলচ্চিত্রে অভিষিক্ত হন মাত্র ১৪ বছরে।

১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ শুরু হলে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে ঢাকা থেকে গ্রামের বাড়ি চলে যান তিনি। সেখান থেকে পাড়ি জমান ভারতে। কলকাতায় গিয়ে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে জনমত সৃষ্টি করতে বিভিন্ন সভা-সমিতি ও অনুষ্ঠানে বক্তৃতা এবং বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে যোগ দেন কবরী। সেসব নিয়ে তার অনেক স্মৃতি রয়েছে। যা তিনি তুলে ধরেছেন তার লেখা বইতেও।