ওমিক্রন ধরনে আক্রান্ত দুই নারী ক্রিকেটার সুস্থ আছে: পাপন

72

অনলাইন ডেস্ক : মেয়েদের ওয়ানডে বিশ্বকাপের বাছাই পর্ব খেলতে জিম্বাবুয়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল। আফ্রিকার দেশটি থেকে ফিরে নারী দলের দুই ক্রিকেটার করোনাভাইরাসের ওমিক্রন ধরনে আক্রান্ত হয়েছেন। আজ (শনিবার) সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর) এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। তবে ওমিক্রন ধরনে আক্রান্ত হলেও দুই ক্রিকেটার সুস্থ আছেন বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।
যদিও ওমিক্রন শনাক্ত দুই নারী ক্রিকেটারের নাম প্রকাশ করেনি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এবং বিসিবির কেউই। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, নারী ক্রিকেট দলের দুই ক্রিকেটারের একজনের বয়স ২১, আরেকজনের ৩০ বছর। গত ৬ ডিসেম্বর তাদের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল।

বিসিবি সভাপতির কাছে নারী দুই ক্রিকেটারের নাম জানতে চাওয়া হলে তিনি অপারগতা প্রকাশ করেছেন, ‘তাদের নাম জানা জরুরি নয়। তারা এখন সুস্থ আছে সেটাই বড় কথা। আমি পারসোনালি কথা বলেছি। জ্বর, গায়ে ব্যথা কিছুই নেই। ওরা বুঝতেই পারেনি যে ওদের কোভিড হয়েছে।’
জিম্বাবুয়েতে একসঙ্গেই ছিল পুরো দল। তাদের মধ্যে শুধু দুজন আক্রান্ত হয়েছেন। বাকি সবাই নেগেটিভ হয়েছেন। ওমিক্রন করোনার নতুন ধরন হওয়ায় শঙ্কার জায়গা বেশি। সেইদিক থেকে দলের কেবল দুজনের আক্রান্ত হওয়ায় ইতিবাচক ব্যাপারও দেখছেন পাপন, ‘যেহেতু ওরা ওখান (জিম্বাবুয়ে) থেকে এসেছে, ওমিক্রন হওয়ার সম্ভবনাই বেশি। আমি অবাক হইনি। বেস্ট পার্টটা হচ্ছে, পুরো টিম একসঙ্গেই ছিল। অন্যরা সবাই নেগেটিভ আছে এবং যাদের হয়েছে তাদের কোনও উপসর্গ নেই। আমি বলবো, এটা একটা বিরাট সুখবর।’

আইসোলেশনের ব্যাপারে বিসিবি সভাপতির বক্তব্য, ‘আইসোলেশন শতভাগ মানা হচ্ছে। এটা কোভিড হলেও যা, না হলেও তা। আমাদের যে নিয়ম সেটা তো মানতেই হবে। প্রথম থেকেই ওরা যেহেতু আইসোলেটেড ছিল, একটা ডেডিকেটেড ফ্লোরে, সেজন্য অন্য কেউ সংক্রমিত হয়নি। ওরা কিন্তু এক রুম থেকে আরেক রুমে যেতে পারে না। যা প্রটোকল দেওয়া আছে সেটাই ফলো করে।’
দেশে ফেরার পর নারী দলের সব ক্রিকেটার, কোচ ও কর্মকর্তাদের বেশ কয়েকটি করোনা পরীক্ষা করানো হয়। কোনও রিপোর্টেই পজিটিভ আসেনি। তবে ৬ ডিসেম্বর দুপুরে করা পরীক্ষায় ওই দুজনের রিপোর্টের ফল পজিটিভ এসেছে। তাদের শরীরে করোনার ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের উপস্থিতি আছে কিনা, তা সেদিন নিশ্চিত হওয়া না গেলেও আজ হয়েছে। এই কারণে মেয়েদের আইসোলেশনের সময়ও বাড়ানো হয়েছে।