উত্তরা-পল্লবী মেট্রোরেলের ট্রায়াল রান ২৯ আগস্ট

দেশের প্রথম মেট্রোরেল ভায়াডাক্টের ওপর পরীক্ষামূলকভাবে চলাচল শুরু হচ্ছে আগামী ২৯ আগস্ট (রবিবার)। এদিন সকালে উত্তরা থেকে মিরপুর পল্লবী স্টেশন পর্যন্ত উড়াল রেলপথে ট্রেন পরিচালনা করা হবে।

ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেডের (ডিএমটিসিএল) ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম এ এন ছিদ্দিক বৃহস্পতিবার (২৬ আগস্ট) বলেন, আগামী ২৯ আগস্ট ভায়াডাক্টের ওপর মেট্রোরেল পরিচালনা করা হবে। উত্তরা থেকে পল্লবী পর্যন্ত যেসব স্টেশন রয়েছে সেগুলোর মধ্যে এ ট্রেন পরিচালনা করার কথা রয়েছে। তবে এ বিষয়ে আরো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দুয়েক দিনের মধ্যে নেওয়া হবে।

জানা গেছে, এখন পরীক্ষামূলক চললেও যাত্রী নেওয়া হবে না। ২০২২ সালের ডিসেম্বরের পর উত্তরা-আগারগাঁও পর্যন্ত যাত্রী নিয়ে মেট্রোরেলের বাণিজ্যিক যাত্রা শুরু হতে পারে।

দেশের প্রথম মেট্রোরেল হচ্ছে রাজধানীর উত্তরার দিয়াবাড়ি থেকে কমলাপুর পর্যন্ত। বর্তমানে উত্তরার দিয়াবাড়ি থেকে এটি মতিঝিল বাংলাদেশ ব্যাংকের সামনে পর্যন্ত নির্মাণের কাজ চলছে। এটি পরে কমলাপুর পর্যন্ত বর্ধিত করা হবে।

প্রকল্পের সর্বশেষ অগ্রগতি প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, ৩১ জুলাই পর্যন্ত বাংলাদেশের প্রথম মেট্রোরেলের নির্মাণ কাজের সার্বিক অগ্রগতি হয়েছে ৬৮.৪৯ শতাংশ। ২০.১০ কিলোমিটার ভায়াডাক্টের মধ্যে ১৬.৫৬৬ কিলোমিটার ভায়াডাক্টের ইরেকশন শেষ হয়েছে। ১৭টি মেট্রোরেল স্টেশনের নির্মাণ কাজ চলছে। দিয়াবাড়িতে ডিপোর ভেতরে রেলপথ স্থাপনের কাজ শেষ হয়েছে। একইসঙ্গে বৈদ্যুতিক ওয়্যারিংয়ের কাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে। ভায়াডাক্টের ওপরে মূল রেলপথে ১৫ দশমিক ৫০ কিলোমিটার রেলপথ স্থাপন করা হয়েছে। ১৫ কিলোমিটার বৈদ্যুতিক ওয়্যারিং শেষ হয়েছে। ইতোমধ্যে চারটি মেট্রো ট্রেন সেট ঢাকার উত্তরায় ডিপোতে এসে পৌঁছেছে। এগুলোর ১৯ ধরনের বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে। ট্রেন চালানো হবে বিদ্যুতের মাধ্যমে।

উত্তরার দিয়াবাড়ি থেকে আগারগাঁওয়ের মধ্যে মেট্রো রেলপথের জন্য নির্মাণ করা হচ্ছে নয়টি স্টেশন। তার মধ্যে কমপক্ষে পাঁচটি স্টেশনের মধ্যে রেলপথের ভায়াডাক্টের ওপর ট্রেন পরিচালনা করার প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতির মধ্যেও এ প্রস্ততি চলছে বলে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

ডিএমটিসিএল’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম এ এন ছিদ্দিক গণমাধ্যমে বলেছিলেন, করোনা মোকাবেলা করেই প্রকল্পের কাজ এগিয়ে নিতে হচ্ছে। আমরা ভায়াডাক্টের ওপর মেট্রোট্রেন পরিচালনা করার প্রস্তুতি নিচ্ছি।

ডিএমটিসিএল সূত্রে জানা গেছে, ছোট পরিসরে উত্তরায় ডিপো এলাকার মধ্যে ট্রেনের টেস্ট রান শেষ হয়েছে। এখন ডিপো এলাকার মধ্যে ট্রেনের ট্রায়াল রান শেষ পর্যায়ে রয়েছে। তারপর এ মাসের মধ্যেই ভায়াডাক্টের ওপর মেট্রোট্রেনের ট্রায়াল রান শুরু করার প্রস্তুতি চলছে। এখন তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে।

ডিএমটিসিএল এর দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, উত্তরা-কমলাপুর মেট্রোরেল প্রকল্পে প্রায় সাত হাজার বিদেশি কাজ করছেন। গত ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রকল্পে যুক্ত ৩২১ ব্যক্তি করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। এ যাবত আক্রান্ত হয়েছেন ৮৮৬ জন।