ইউক্রেন সংকট: রাশিয়ার ওপর এবার মার্কিন নিষেধাজ্ঞা

87

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ইউক্রেনের ডোনেটস্ক ও লুহানস্ক অঞ্চলকে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ায় এবার রাশিয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার এই নিষেধাজ্ঞা আরোপের ঘোষণা দেন আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

এর আগে একই ইস্যুতে ইউরোপীয় ইউনিয়ন, জার্মানি ও যুক্তরাজ্যও রাশিয়ার ওপর বিভিন্ন ধরনের নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে।
এই নিষেধাজ্ঞার ফলে পশ্চিমা দেশগুলো থেকে আর্থিক সাহায্য কিংবা অনুদানের পথ সংকীর্ণ হয়ে গেল রাশিয়ার সামনে।

এদিকে, ইউক্রেন-রাশিয়া সংঘাত নিয়ে বক্তব্য রাখতে গিয়ে মঙ্গলবার জাতির উদ্দেশ্যে দেওয়া ভাষণে জো বাইডেন বলেন, “আমরা দুটি রাশিয়ান আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করছি। এগুলো এরপর থেকে পাশ্চাত্যের দেশগুলো থেকে কোনও টাকা তুলতে পারবে না। পাশ্চাত্যের বাজারে ব্যবসা-বাণিজ্য করতে পারবে না। এমনকি বুধবার থেকে রাশিয়ার উচ্চবিত্ত সমাজের মানুষের উপরেও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হবে। তারা রাশিয়ার অন্যায় কাজে সহযোগিতা করছে। সেটার ফল তাদের ভোগ করতে হবে।”

তিনি আরও জানান, ইউক্রেনের চারদিকে রাশিয়ার এক লাখ ৫০ হাজার সৈন্য রয়েছে। যুদ্ধ বিমান ও ক্ষেপণাস্ত্র নিয়ে বেলারুশেও তাদের সৈন্যরা অবস্থান করছে আক্রমণ করার জন্য। ইউক্রেন সংলগ্ন সীমান্তে সৈন্য পাঠাচ্ছে তারা। কৃষ্ণ সাগরে তাদের যুদ্ধ জাহাজ টহল দিচ্ছে।

তিনি হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, “আমাদের আর বোকা বানানো যাবে না। কোনও আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ দেওয়া হবে না। রাশিয়া যদি যুদ্ধের পদক্ষেপ নেয়, তাহলে রাশিয়াকেই সেটার দায়-দায়িত্ব নিতে হবে।”

সোমবার রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন পূর্ব ইউক্রেনের বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত ওই অঞ্চলকে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেন এবং সেখানে শান্তি প্রতিষ্ঠায় সেনা পাঠানোর নির্দেশ দেন।

বিষয়টির সমাধানের চেষ্টা করে পশ্চিমের বেশ কয়েকটি দেশ। কিন্তু পারেনি। এরপর থেকেই ইউরোপ ও আমেরিকার দেশগুলো রাশিয়ায় বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে শুরু করে। সূত্র: আল-জাজিরা