অর্থমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করলেন এরদোয়ানের জামাতা

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোয়ানের মেয়ের জামাই বেরাত আলবাইরাক অর্থমন্ত্রীর পদ থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন। স্বাস্থ্যগত কারণে রোববার তিনি পদত্যাগ করেছেন বলে তার টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

তিনি প্রায় পাঁচ বছর ধরে দেশটির অর্থমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। বেরাত আলবাইরাক (৪২) বলেন, স্বাস্থ্যগত কারণে আমি আমার দায়িত্ব চালিয়ে যেতে পারছি না। এ পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমি।

আলবাইরাক জানিয়েছেন, তিনি এখন তার পরিবারকে আরও বেশি সময় দিতে চান। কারণ বিভিন্ন দায়িত্বের কারণে তিনি তার পরিবারকে একেবারেই সময় দিতে পারেন না।

এরদোয়ানের বড় মেয়ে ইসরার সঙ্গে বিয়ে হয়েছে আলবাইরাকের। তিনি ২০১৮ সালে তুরস্কের অর্থমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। এর আগে ২০১৫ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত তিনি দেশটির বিদ্যুৎমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

তার পদত্যাগপত্র গ্রহণ করা হয়েছে কীনা তা এখনও নিশ্চিত নয়। এর আগে চলতি বছরের শুরুতে পদত্যাগ করেছিলেন তুরস্কের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুলেইমান সয়লু। সে সময় তার পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেননি এরদোয়ান এবং তিনি ওই পদে এখনও বহাল আছেন।

চলতি বছরের শুরু থেকেই ডলারের বিনিময়ে তুর্কি মুদ্রা লিরার দাম ৩০ শতাংশ পড়ে যাওয়ায় সম্প্রতি দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর মুরাত উইসালকে বরখাস্ত করেছেন প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান। ওই ঘটনার একদিন পরেই আলবাইরাক পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন।

সাবেক অর্থমন্ত্রী নেসি আগবালকে নতুন গভর্নর হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তিনি অর্থমন্ত্রী হিসেবে মাত্র ১৬ মাস দায়িত্ব পালন করেছেন।

গত শনিবার প্রেসিডেন্ট এক ডিক্রি জারির মাধ্যমে মুরাত উইসালকে বরখাস্ত করেন। এদিকে, তুরস্কের গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, আগবালকে নতুন গভর্নর হিসেবে দায়িত্ব প্রদানের সিদ্ধান্তের কারণেই আলবাইরাক পদত্যাগ করেছেন।

অপরদিকে তুরস্কের ক্ষমতাসীন একেপি পার্টির পার্লামেন্টারি ডেপুটি গ্রুপের চেয়ার মেহমেত মুস এক টুইট বার্তায় আলবাইরাকের প্রতি সমর্থন জানিয়ে বলেছেন, তিনি খুব কঠিন সময়ে দেশের অর্থমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি আশা প্রকাশ করেছেন যে, প্রেসিডেন্টের অনুমতি নিয়ে আলবাইরাক নিজের দায়িত্ব চালিয়ে যাবেন।