অভিনেত্রী সায়নী গ্রেফতার

20

বিনোদন ডেস্ক : গাড়ি চাপা দিয়ে খুনের চেষ্টার অভিযোগে পশ্চিমবঙ্গের অভিনেত্রী ও তৃণমূলের যুবনেত্রী সায়নী ঘোষকে গ্রেফতার করা হয়েছে। রবিবার (২১ নভেম্বর) পূর্ব আগরতলা থানায় তাকে জিজ্ঞাসাবাদের পর গ্রেফতার দেখানো হয়।

তবে তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ দাবি করেছেন, রাজনৈতিক নির্দেশেই সায়নী ঘোষকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

ভারতীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, ২০ নভেম্বর রাতে নির্রাচনী প্রচার শেষে ফেরার পথে চৌমুহনীতে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের সভার উদ্দেশে তিনি ‘খেলা হবে’ স্লোগান দেন, পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রীকে কটূক্তি করেন। এ সময় অভিনেত্রীর গাড়ি এক ব্যক্তিকে চাপা দেয় বলেও অভিযোগ ওঠে।পরে ওই ব্যক্তিকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এরপর জামিন অযোগ্য ধারায় সায়নীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। মামলার পর তাকে গ্রেফতার করার জন্য পুলিশ যায় পোলো হোটেলে। সেখানেই ছিলেন সায়নীসহ তৃণমূল নেতৃবৃন্দ। কিন্তু রাতে পুলিশের কাছে আইনি নোটিশ দাবি করেন তৃণমূল নেতারা। সায়নীকে থানায় নিয়ে যেতে বাধা দেন কুণাল ঘোষ।

কিন্তু রবিবার সকালে আগরতলা পূর্ব থানায় নিজেই যান সায়নী। তার সঙ্গে ছিলেন কুণাল ঘোষ, সুস্মিতা দেব। থানায় দিনভর জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় অভিনেত্রীকে।তৃণমূল নেতৃবৃন্দ থানায় থাকাকালীনই নতুন করে রাজনৈতিক অশান্তি শুরু হয় থানার বাইরে। তৃণমূল-বিজেপির সংঘর্ষে ২ তৃণমূল কর্মী আহত হন, তাদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

এসবের পর বিকেলের দিকে আগরতলা পূর্ব থানার পুলিশ সায়নী ঘোষকে গ্রেফতার করে। তার বিরুদ্ধে ‘হিট অ্যান্ড রান’ বা গাড়ি চাপা দিয়ে খুনের চেষ্টার অভিযোগে ৩০৭ ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এদিকে সায়নীকে গ্রেফতারে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে তৃণমূল।